বৃহস্পতিবার, ০৪-জুন ২০২০, ০২:৪২ অপরাহ্ন

সম্মানিত চাল চোর

shershanews24.com

প্রকাশ : ০৬ এপ্রিল, ২০২০ ০৯:৫৪ অপরাহ্ন

আহমেদ আরিফ: 'ঘরে থাকুন, নিজে নিরাপদ থাকুন, দেশকেও নিরাপদে রাখুন' স্লোগান আর হাতে খাবার নিয়ে গরীবের দুয়ারে দুয়ারে যাবার কথা স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, প্রভাবশালী নেতাদের। কিন্তু ঘটছে আপনারা ঘরে থাকুন, না খেয়ে দেশকে নিরাপদে রাখুন, আমরা আপনাদেরটা লুটপাট করি।

গরীব মানুষদের জন্য বরাদ্দ হওয়া সরকারী ত্রাণের শত শত চালের বস্তা উদ্ধার হচ্ছে কাউন্সিলর, চেয়ারম্যান, মেম্বার, স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতাদের বাড়ি থেকে, গুদাম থেকে। কোথাও আবার অসহায় পরিবারের 'কাল্পনিক তালিকা ' তৈরি করে চলছে হরিলুট।

যাদের ঘর থেকে, গুদাম থেকে গরীবের ত্রাণের শত শত বস্তা চাল উদ্ধার হচ্ছে তাঁরা সবাই সমাজের 'সম্মানিত', 'প্রভাবশালী' ব্যক্তি। নগদ অর্থ, সম্পদের কোন অভাব না থাকা সম্মানিত, প্রভাবশালীরা দিনে এনে দিনে খাওয়া মানুষদের কয়েক কেজি চালের লোভ সামলাতে পারছেন না। নিজ দায়িত্বে ওনারা গরীবের চাল নিজেদের ঘরে, গুদামে রাখছেন, ট্রাক ভরে নিয়ে যাচ্ছেন।

ওনারা চোর। দুঃখিত পাঠক, ওনাদের শুধু চোর লিখে অসম্মান করতে চাইনা। ওনারা আমাদের 'সম্মানিত চাল চোর'। অবশ্য মানীলোকের মান সামান্য চাল চুরিতে নষ্ট হয়না। হবার কথাও না। গরীবের হক চুরি করা মানী লোকদের মান নষ্ট হবার রেকর্ড এই দেশে তেমন একটা নেই। গরীবের ত্রাণের চাল চুরি করে ধরা পড়ে কারো রাজনৈতিক ক্যারিয়ারও নষ্ট হয়না। উল্টো আরো বড় নেতা হবার সুযোগ তৈরি হয়।

সম্মানিত চাল চোরেরা হয়ত ভাবছেন, করোনা ভাইরাস শুধু গরীবদের আক্রান্ত করবে। ওনাদের আক্রান্ত করবে না। সাধারণ মানুষরা যেমন ভয়ে চেয়ারম্যান, কাউন্সিলর, নেতাদের আশপাশে যায়না করোনা ভাইরাসও ভয়ে ওনাদের কাছে যাবে না। সম্মানিত চাল চোরদের সামাজিক, রাজনৈতিক পরিচয় দেখেই জান নিয়ে পালাবে করোনা ভাইরাস!

'সম্মানিত'রা এখন গরীবের ত্রাণের চাল চুরি করছেন। আগামীতে হয়ত করোনা টেস্ট কিট চুরি করবেন। পত্রিকার শিরোনাম হবে 'চেয়ারম্যানের গুদাম থেকে বস্তা ভর্তি করোনা টেস্ট কিট উদ্ধার' কিংবা '৫০০ করোনা টেস্ট কিট সহ নেতা আটক' ।

প্রিয় পাঠক, ওনারা ওনাদের মত করে ভাবুক। আমাদের বলায়, আমাদের আহবানে ওনাদের মধ্যে মানবিকতা জেগে উঠবেনা। আমরা বরং আমাদের সামর্থ্য দিয়ে একে অন্যের পাশে দাঁড়াই। একে অন্যের প্রতি মানবিক হই।

ahmedarif2011@gmail.com