বৃহস্পতিবার, ১৪-নভেম্বর ২০১৯, ০৬:০৭ পূর্বাহ্ন
  • জেলা সংবাদ
  • »
  • ফরিদপুরে এক রাতে বিএনপির ২৫টি নির্বাচনী অফিস ভাংচুর

ফরিদপুরে এক রাতে বিএনপির ২৫টি নির্বাচনী অফিস ভাংচুর

shershanews24.com

প্রকাশ : ১২ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০২:৩৯ অপরাহ্ন

শীর্ষ নিউজ, ফরিদপুর: ফরিদপুর-৩ (সদর) আসনে বিএনপি মনোনীত ধানের শীষের প্রার্থী চৌধুরী কামাল ইবনে ইউসুফের ২৫টি নির্বাচনী কার্যালয় ভাংচুর করা হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার দিবাগত গভীর রাতে এসব কার্যালয় ভাংচুরের ঘটনা ঘটে।
এদিকে ছাত্রলীগ ও যুবলীগের নেতৃত্বে নির্বাচনী অফিসে ভাংচুর চালানো হয়েছে বলে বিএনপির পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়েছে। এছাড়া ধানের শীষের পক্ষে কাজ করার ‘অপরাধে’ বিএনপি ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের সাদা পোশাকের পুলিশ হয়রানি করছে বলে তারা অভিযোগ করেন।
ফরিদপুর শহর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোস্তফা মিরাজ জানান, রাতের আধারে শহরের টেপাখোলা বেলতলা, বৈরাগী স্কুল, পশ্চিম খাবাসপুর মেডিকেল হাসপাতাল এলাকা, আদমপুর ও গঙ্গাবর্দী এলাকার বিভিন্নস্থানে ধানের শীষ প্রতীকের প্রায় ২৫টি নির্বাচনী কার্যালয় একরাতের মধ্যেই ভাংচুর করা হয়।
জানা গেছে, চেয়ার-টেবিলসহ এসব কার্যালয়ে রক্ষিত বিভিন্ন মালামাল এবং আসবাবপত্র ভাংচুর ও তছনছ করা হয়েছে। পাশাপাশি নির্বাচনী কার্যালয়ের সামনের ব্যানার ও পোস্টারও ছিড়ে ফেলা হয়েছে।
বিএনপি নেতা সরফরাজ খান সুন্দর জানান, আলিপুর বাদামতলা মোড়ে তার ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানে ধানের শীষের নির্বাচনী কার্যালয় করা হয়েছিলো। এই কার্যালয়টি ভাংচুরের পাশাপাশি ড্রয়ারে রাখা নগদ টাকা ও চেকবই নিয়ে গেছে দুর্বৃত্তরা।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক নৈশপ্রহরী জানান, দুইটি মাইক্রোবাস ও প্রায় ২৫টির মতো মোটরসাইকেলে করে আসা লোকজন মুখোশে মুখ ঢেকে ও হেলমেট পড়া অবস্থায় নির্বাচনী কার্যালয় ভাংচুর করে।
ফরিদপুর-৩ আসনে ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থী ও বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির ভাইস চেয়ারম্যান চৌধুরী কামাল ইবনে ইউসুফ এ ঘটনাকে কাপুরুষোচিত ও ন্যাক্কারজনক হিসেবে অখ্যায়িত করে বলেন, নির্বাচনী পরিবেশকে উত্তপ্ত করার জন্য সবধরণের পন্থাই তারা বেছে নিচ্ছে। সাদা পোশাকে পুলিশ আমাদের নেতাকর্মীদেরকে হয়রানি করছে। একের পর এক অভিযোগ জানিয়েও আমরা কোনো প্রতিকার পাচ্ছি না।
শীর্ষ নিউজ/প্রতিনিধি/জে