রবিবার, ১৫-সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৪:১৮ অপরাহ্ন

পটুয়াখালীতে অভ্যন্তরীণ বাস চলাচল বন্ধ

shershanews24.com

প্রকাশ : ২২ মে, ২০১৯ ১২:০২ অপরাহ্ন

শীর্ষকাগজ, পটুয়াখালী: বাস টার্মিনালের কর্তৃত্ব ও সমিতির নেতৃত্ব নিয়ে দ্বন্দ্বের জেরে আজ বুধবার সকাল থেকে পটুয়াখালীর অভ্যন্তরীণ সড়কপথে বাস চলাচল বন্ধ রয়েছে। কোনো ঘোষণা ছাড়া হঠাৎ করে বাস চলাচল বন্ধ হওয়ায় অভ্যন্তরীণ পথের যাত্রীরা চরম দুর্ভোগে পড়েছে।
পটুয়াখালী বাস-মিনিবাস মালিক সমিতির নেতৃত্ব নিয়ে মালিকদের মধ্যে বিরোধ চরমে উঠেছে। গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে সমিতির দুই পক্ষের মধ্যে পাল্টাপাল্টি ধাওয়া ও হামলার ঘটনা ঘটে। এতে অন্তত ১০ জন আহত হয়। পুলিশ ও র‌্যাব পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। আহত ব্যক্তিদের মধ্যে সমিতির নির্বাহী সভাপতি মো. মিজানুর রহমানসহ ছয়জনকে পটুয়াখালী ২৫০ শয্যার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনার জের ধরে রাতেই বাস চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। এর আগে গত সোমবার রাতেও দুই পক্ষের মধ্যে পাল্টাপাল্টি ধাওয়ার ঘটনা ঘটে।
পটুয়াখালী বাস মালিক সমিতির বর্তমান কমিটির সভাপতি মো. রিয়াজুদ্দিন মৃধা ও সাধারণ সম্পাদক গোলাম মাওয়া দুলু মৃধা। এই দুজন মালিক সমিতির একটি পক্ষের নেতৃত্ব দিচ্ছেন। অপর পক্ষে ওই কমিটির কার্যনির্বাহী সভাপতি মিজানুর রহমান, সহসভাপতি বাদশা মৃধা ও যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. রিপন মিয়া, সড়ক সম্পাদক শামীম মৃধাসহ মালিকদের একটি অংশ রয়েছে।
সাধারণ বাসমালিকেরা জানান, সমিতির দুই পক্ষের বিরোধে জের ধরে যেকোনো মুহূর্তে বাস টার্মিনাল এলাকায় বড় ধরনের সহিংসতা ঘটার আশঙ্কা রয়েছে। এ পরিস্থিতিতে রাস্তায় বাস নামানো বিপজ্জনক। তাই দ্রুত এ সমস্যা সমাধানের দাবি জানিয়েছেন তাঁরা।
শ্রমিকেরা জানান, মালিকদের দ্বন্দ্বে সাধারণ শ্রমিকেরা হামলার শিকার হতে পারেন। এ কারণে তাঁরা এখন বাস নিয়ে সড়কে নামতে নিরাপত্তার অভাব বোধ করছেন। এ সমস্যা নিরসনে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ চেয়েছেন সাধারণ বাসমালিক ও শ্রমিকেরা ।
সোমবার সকালে পটুয়াখালী প্রেসক্লাবে সমিতির এক পক্ষ সংবাদ সম্মেলন করে। তারা পটুয়াখালী জেলা বাস-মিনিবাস মালিক সমিতির সভাপতি রিয়াজুদ্দিন মৃধা এবং সাধারণ সম্পাদক গোলাম মাওলা দুলু মৃধার বিরুদ্ধে দুর্নীতি ও অনিয়মের অভিযোগ তোলে। সংবাদ সম্মেলনে তারা সমিতির গঠনতন্ত্র ও বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন সমিতির নির্দেশনা অনুযায়ী আগামী ৩০ দিনের মধ্যে একটি সুষ্ঠু নির্বাচনের মাধ্যমে নতুন একটি কমিটি গঠন করার দাবি জানায়।

এ অভিযোগ মিথ্যা বলে দাবি করে রিয়াজুদ্দিন মৃধা বলেন, কিছু মালিক নিজেরা সমিতির পদ দখলের জন্য সাধারণ সদস্যদের ভুল বুঝিয়ে সমিতির মধ্যে বিভেদ সৃষ্টি করছেন।
শীর্ষকাগজ/জে