শুক্রবার, ৩০-অক্টোবর ২০২০, ০৯:৫০ অপরাহ্ন
  • বিনোদন
  • »
  • মাদক না নেওয়ার দাবি দীপিকার, নায়কদের দিকেও মাদক সংশ্লিষ্টতার অভিযোগ

মাদক না নেওয়ার দাবি দীপিকার, নায়কদের দিকেও মাদক সংশ্লিষ্টতার অভিযোগ

shershanews24.com

প্রকাশ : ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ১১:৩৯ অপরাহ্ন

শীর্ষনিউজ ডেস্ক : মাদক ঝড়ে হাড় কাঁপুনি জ্বর বলিউডে! এনসিবির জেরায় ড্রাগ চ্যাটের বিষয়টি স্বীকার করলেও মাদক না নেয়ার দাবি করেছেন দীপিকা পাডুকোন। অভিযোগ নাকচ করেছেন সারা, শ্রদ্ধা, রাকুলও। এবার অভিযোগ উঠছে বলিউড নায়ক-পরিচালকদের বিরুদ্ধেও। বেশ ক'জনের ওপর চলছে নজরদারিও।

গুঞ্জন নয়, সত্যি।  ২০১৭ সালের হোয়াটসঅ্যাপ ড্রাগ চ্যাটের 'ডি' দীপিকাই ছিল।  এনসিটির জেরায় স্বীকার করেছেন পর্দার 'পদ্মাবতী'।  জেরায় মাদকে যোগসাজস মিললেও ড্রাগ না নেয়ার দাবি দীপিকা-সারা- শ্রদ্ধার।

শনিবার এনবিসির কার্যালয়ে জেরার মুখোমুখি হোন দীপিকা পাডুকোন। এরপর মুখোমুখি হন শ্রদ্ধা ও সারা। দীপিকা স্বীকার করেছেন, ২০১৭ সালের ড্রাগ চ্যাটের ডি তিনিই।  তবে উড়িয়ে দিয়েছেন ড্রাগ সেবনের অভিযোগ।

এর আগে সুসান্তের ম্যানজার জয়া বলেছিলেন ড্রাগ চ্যাট গ্রুপের এডমিন দীপিকা। এদিকে দীপিকার ম্যানজার কারিশ্মাকে দ্বিতীয়বারের মতো জেরা করা হয়েছে।

এর আগে জেরায় রাকুল প্রীত সিংও জানান জীবনে কখনো ড্রাগ নেননি। দীপিকার পরেই শ্রদ্ধা কাপুর যান এনবিসির কার্যালয়ে। ড্রাগ সংশ্লিষ্টতা অস্বীকার করেন এই অভিনেত্রীও।

জিজ্ঞাসাবাদে নবাব কন্যা সারা আলী খানও নাকচ করেছেন অভিযোগ।  এদিকে মেয়ের জন্য আইনি পরামর্শক নিয়োগ দিচ্ছেন বাবা সাইফ আলী খান। ২০১৭ সালের এক পার্টি ঘিরে মাদকের অভিযোগ। স্যোসাল মিডিয়া ভাইরাল হয়েছে সেই পার্টির ভিডিও ক্লিপ।

করন জোহরের সেই পার্টিতে ছিলেন এক ঝাঁক নামিদামি তারকা। সাইফ আলী খান, অর্জুন কাপুর, রনবীর, শাহেদ কাপুরকেও দেখা গেছে ভিডিওতে।  তাই এবার এনসিবির নজর পড়তে পারে বলিউড নায়কদের দিকেও। তবে পার্টিতে মাদক ছিল না বলে এক টুইট বার্তায় দাবি করেছেন করন জোহর।

নায়কদের নজরদারির ওপর আরেকটু ঘি ঢেলে দিয়েছেন কলকাতার সাংসদ অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তী। এক টুইটে বলেছেন, শুধু নায়িকারা কেন, নায়করা কী ধোঁয়া তুলসি পাতা! 
শীর্ষনিউজ/এসএসআই