সোমবার, ২৬-আগস্ট ২০১৯, ০৬:৫৪ পূর্বাহ্ন

ইফতারে আনারস খাবেন যে কারণে

shershanews24.com

প্রকাশ : ২৬ মে, ২০১৯ ০৬:১১ অপরাহ্ন

শীর্ষকাগজ, ঢাকা : চলছে পবিত্র রমজান মাস। এ সময় সারা দিনের রোজা শেষে ইফতারে চাই পুষ্টিসমৃদ্ধ খাবার। এ ক্ষেত্রে বিভিন্ন ফল হতে পারে একটি গুরুত্বপূর্ণ খাবার। আর সেটি যদি হয় আনারস, তাহলে তো কথাই নেই। অসংখ্য গুণে গুণান্বিত এই ফল খেয়ে যেমন শরীরে পানির চাহিদা মেটানো যায়, তেমনি বাড়তি পুষ্টিগুণ পেতেও এর জুড়ি মেলা ভার।

সুস্বাদু এই ফলটির রয়েছে নানা স্বাস্থ্য উপকারিতা। তবে চলুন জেনে নিই আনারসের কিছু গুণের কথা-

শক্তির উৎস

আনারস ভিটামিন এ, বি ও সির একটি উৎকৃষ্ট উৎস। এতে রয়েছে ক্যালসিয়াম, ফসফরাস, পটাসিয়াম, ব্রোমেলেইন, বিটা-ক্যারোটিন, মিনারেল, শর্করা, ফাইবার, আয়রন, প্রোটিন ও সহজপাচ্য ফ্যাট খুবই অল্প পরিমাণে। এ ছাড়া প্রতি কেজি আনারস থেকে প্রায় ৫০০ ক্যালরি শক্তি পাওয়া যায়।

হাড়ের ক্ষয়রোধ ও বদহজম দূর করে

দেহের হাড় ও মাড়ি ক্ষয়রোধ, ত্বকের যত্নে, চুল পড়া, পেট ফাঁপা বা বদহজম ও জ্বর ও শরীর ব্যথায় আনারসের জুড়ি মেলার ভার।

ক্লান্তি দূর করে

সারা দিন রোজার শেষে ইফতারে যখন ক্লান্তি ভর করে, তখন আনারস আপনাকে ফিরিয়ে দিবে এনার্জি। আনারস খেতে পারেন জুস করে কিংবা সালাদেও।

ওজন কমাতে সাহায্য করে

আনারসে প্রচুর পরিমাণ ভিটামিন সি বিদ্যমান রয়েছে।এ ছাড়া এতে ফ্যাটের পরিমাণ একেবারে কম হওয়ায় এই ফল ওজন কমাতে সাহায্য করে।এটি রুচিবর্ধক একটি ফল। তাই মুখে রুচি না থাকলে আনারস খেতে পারেন।

গবেষণায় দেখা গেছে,আনারস ম্যাক্যুলার ডিগ্রেডেশন হওয়া থেকে আমাদের রক্ষা করে। এ রোগটি আমাদের চোখের রেটিনা নষ্ট করে দেয়। ফলে আমরা ধীরে ধীরে অন্ধ হয়ে যাই। আনারসে বেটা ক্যারোটিন থাকায় তা নিয়মিত খেলে এ রোগ হওয়ার সম্ভাবনা ৩০ শতাংশ পর্যন্ত কমে যায়।

জন্ডিসে উপকারী

আনারস জ্বর ও জন্ডিস রোগের জন্য বেশ উপকারী। এতে রয়েছে প্রচুর ক্যালরি, যা আমাদের শক্তি জোগায়। গবেষণায় দেখা গেছে, আনারস গলা ব্যথা, সাইনোসাইটিস জাতীয় অসুখগুলোর বিরুদ্ধে লড়াই করে।সেইসঙ্গে শরীরের অন্য অঙ্গগুলোকেও ভালো রাখে।

এ ছাড়াও আনারসের ক্যালসিয়াম দাঁতের সুরক্ষায় কাজ করে। মাড়ির যেকোনো সমস্যা সমাধান করতে বেশ কার্যকর ভূমিকা পালন করে এই আনারস।ফলটি নিয়মিত খেলে দাঁতে জীবাণুর আক্রমণ কম হয় এবং দাঁত ঠিক থাকে।
শীর্ষকাগজ/জে