শনিবার, ২০-জুলাই ২০১৯, ০৩:০৯ পূর্বাহ্ন

এই গরমে ডাবের পানি কেন ব্যবহার করবেন

shershanews24.com

প্রকাশ : ০৫ জুলাই, ২০১৯ ০৫:৪৯ অপরাহ্ন

শীর্ষকাগজ ডেস্ক : প্রচন্ড গরমে স্বস্তি দেয় ডাবের পানি। নিমেষে ক্লান্তি দূর করতে ডাবের পানির জুড়ি মেলা ভার। একইভাবে ত্বক পরিচর্চাতেও ডাবের পানি খুবই কার্যকর। আসুন দেখে নেই তীব্র গরমের এই সময়ে নিয়মিত ডাবের পানি খাওয়ার ও ব্যবহারের উপকারিতাগুলো কী কী।

ক্লান্তিকর দিনে স্বস্তি আনে

কোন কোন দিন খুব ব্যস্ততায় কাটে। তীব্র রোদে বাইরে যেতে হয় অনেকের। এই গরমে অল্প সময় কাজ করে ভীষণ ক্লান্ত হয়ে যাই আমরা। গরমের ক্লান্তি দূর করে কাজের উদ্যোম ফিরে পেতে ডাবের পানি খুব কার্যকর। এই গরমে নিয়মিত ডাবের পানি খেলে শরীরে পানির চাহিদা পূরণ করার পাশাপাশি গরমের ক্লান্তিও দূর হবে।

ত্বকে আনে স্বাস্থ্যকর উজ্জ্বলতা

গরমে প্রচুর ঘাম বের হয়। আর এই ঘামের সাথে শরীর থেকে প্রচুর পানি বেরিয়ে যাওয়ায় ত্বক হয়ে যায় মলিন। আদ্রতা হারিয়ে অনেকের ত্বক কুঁচকে যেতে পারে। ডাবের পানি ত্বকের আর্দ্রতা ধরে রেখে ত্বক করে প্রাণবন্ত। তাই তীব্র রোদ থেকে ফিরে ডাবের পানি খাওয়ার পাশাপাশি ত্বকেও ব্যবহার করুন।

ত্বকের আদ্রতা ধরে রাখতে

শুষ্ক ত্বকের জন্য ডাবের পানি অত্যন্ত কার্যকর। প্রাকৃতিক উপায়ে ত্বক ময়েশ্চারাইজ করতে ডাবের পানি দারুণ কার্যকরী। বাজারে কেনা ময়েশ্চারাইজার ক্রিম বা লোশনে অনেকসময় ক্ষতিকর রাসায়নিক উপাদান থাকে। এজন্য গরমের দিনে ত্বকে নিশ্চিন্তে ডাবের পানি ব্যবহার করতে পারেন। ত্বক হবে মসৃণ ও আদ্র।

চুলকানি কমায়

ডাবের পানি ফাঙ্গাল, প্রদাহ ও ব্যাকটেরিয়ারোধী। তাই ডাবের পানি সরাসরি ত্বকে ব্যবহার করা যায়। ত্বকের কোথাও চুলকানি বা র‌্যাশ হলে ডাবের পানি ব্যবহার করুন। এছাড়া ত্বকের যেকোন সংক্রমণ প্রতিরোধ করার জন্য ডাবের পানি কার্যকর।

ব্রণের সমস্যা দূর করে

ডাবের পানিতে ব্যাকটেরিয়ারোধী উপাদান আছে। তাই এটি ব্রণের জন্য খুবই উপকারি। যারা দীর্ঘদিন ধরে ব্রণের সমস্যায় ভুগছেন তারা নিয়মিত ডাবের পানি দিয়ে মুখ ধুতে পারেন। ডাবের পানি দিয়ে মুখ ধোয়ার পর শুকিয়ে গেলে ব্রণের জায়গাগুলোতে নারকেল তেল লাগান। এতে ব্রণের দাগ অনেকটা হালকা হয়ে যাবে।

বয়সের ছাপ কমাতে

নিয়মিত ডাবের পানি খেলে বয়সের ছাপ কমে যায় অনেকটাই। এতে থাকা ভিটামিন সি, ভিটামিন বি, ভিটামিন কে, জিঙ্ক, আয়োডিনসহ নানা উপাদান ত্বকের জন্য দারুণ উপকারি। তাই নিয়মিত ব্যবহারে ডাবের পানি ত্বকের লাবণ্য ধরে রাখে। বয়সের কারণে ত্বকে বলিরেখার প্রবণতা কমায়।

ডাবের পানিতে নানা ধরণের পুষ্টি উপাদান থাকে। তাই ডাবের পানি স্বাস্থ্য ও ত্বকের সুরক্ষায় অত্যন্ত উপকারি। এই ঋতুতে হাতের নাগালেই ডাব পাওয়া যায়। নিয়মিত ব্যবহারের জন্য ডাবের পানি ফ্রিজে রেখেও সংরক্ষণ করতে পারেন দুই থেকে তিনদিন। তাই গরমের ক্লান্তি দূর করে ত্বকে স্বাস্থ্যকর উজ্জ্বলতা আনতে এই গরমে ডাবের পানি হোক নিত্য সঙ্গি।
শীর্ষকাগজ/এসএসআই