রবিবার, ২০-অক্টোবর ২০১৯, ০৭:৫৬ পূর্বাহ্ন
  • আইসিটি
  • »
  • আবরারের আইডিতে ‘রিমেম্বারিং’ ট্যাগ যুক্ত করল ফেসবুক

আবরারের আইডিতে ‘রিমেম্বারিং’ ট্যাগ যুক্ত করল ফেসবুক

shershanews24.com

প্রকাশ : ০৮ অক্টোবর, ২০১৯ ০৯:১৩ পূর্বাহ্ন

শীর্ষনিউজ, ঢাকা: ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দেয়ার কারণে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা রোববার (৬ অক্টোবর) গভীররাতে পিটিয়ে হত্যা করেছেন বুয়েট ছাত্র আবরার ফাহাদকে। পরদিন সোমবার (৭ অক্টোবর) দুপুরের পর আবরারের ফেসবুক আইডিতে ‘রিমেম্বারিং’ ট্যাগ যুক্ত করেছে ফেসবুক। আবরার এখন শুধুই স্মৃতি।
‘রিমেম্বারিং’ ট্যাগ যুক্ত করে ফেসবুক তার প্রোফাইল পিকচারের ওপরে লিখেছে, 
‘We hope people who love Abrar will find comfort in visiting his profile to remember and celebrate his life.’
এতে তার প্রোফাইলে অন্য কেউ আর লগইন করতে পারবে না। এছাড়া অ্যাকাউন্টটি হ্যাক করারও ঝুঁকি থাকল না।
এর আগে ৫ অক্টোবর নিজের ফেসবুক আইডিতে দেওয়া এক পোস্টের জেরে তাকে হত্যা করা হয়েছে বলে জানা গেছে। এটি ছিল আবরারের শেষ পোস্ট। যা শেয়ার হয়েছে ৪৩ হাজার বার। আর তাতে প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন প্রায় দেড় লাখ মানুষ।

এ ঘটনায় ছাত্রলীগের ১৯ জন নেতাকর্মীকে আসামি করে মামলা দায়ের করা হয়েছে। এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় জড়িত থাকায় শাখা ছাত্রলীগের ১১ নেতাকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করেছে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ।

আবরার বুয়েটের ইলেকট্রিক্যাল ও ইলেকট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের ১৭তম ব্যাচের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী। আবরার কুষ্টিয়া শহরের পিটিআই রোডের বাসিন্দা মো. বরকত উল্লাহর ছেলে। বরকত উল্লাহ ব্র্যাকের নিরীক্ষক কর্মকর্তা আর আবরারের মা রোকেয়া খাতুন একটি কিন্ডারগার্টেন স্কুলের শিক্ষক।
রোববার রাত ৮টার দিকে শের-ই বাংলা হলের ১০১১ নম্বর কক্ষ থেকে কয়েকজন আবরারকে ডেকে নিয়ে যান। পরে রাত ৩টার দিকে বুয়েটের শের-ই–বাংলা হলের নিচতলা থেকে আবরার ফাহাদের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। এ হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে সোমবার ছয়জনকে আটক করেছে পুলিশ। এর মধ্যে চারজন বুয়েট শাখা ছাত্রলীগের পদধারী নেতা।
শীর্ষনিউজ/জে