বুধবার, ২৬-সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০৯:০০ পূর্বাহ্ন

মেয়ের জন্য ১২ জন ব্যক্তিগত কর্মী চেয়ে বিজ্ঞাপন

Shershanews24.com

প্রকাশ : ১২ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০৫:৫৭ অপরাহ্ন

শীর্ষনিউজ ডেস্ক : মেয়ে পড়তে যাবে বিদেশে। সেখানে তাকে সাহায্য করার জন্য ১২ জন কর্মী নিয়োগ করছেন এক ভারতীয় ধনকুবের। এমন খবরে এরই মধ্যে ব্রিটিশ বিভিন্ন গণমাধ্যমে শিরোণাম হয়েছেন সেই বাবা ও তার মেয়ে। তবে মেয়েটি বা তার পরিবারের পরিচয় নিয়ে কোনও তথ্য জানা যায়নি। 
জানা গেছে, ধনকুবের সেই ব্যক্তির মেয়ে স্কটল্যান্ডের আন্ড্রুজ বিশ্ববিদ্যালয়ে চার বছরের জন্য পড়তে যাচ্ছেন। এ কারণে প্রথমেই বিশ্ববিদ্যালয়ের কাছে একটি বিলাসবহুল বাড়ি কিনেন তিনি। কেননা হোস্টেলে থাকলে অন্যদের সঙ্গে মেয়েটিকে রুম শেয়ার করতে হবে। এরপর সেখানে মেয়েটির দেখাশোনা কিভাবে হবে এই চিন্তা থেকেই ১২ জন কর্মী নিয়োগের সিদ্ধান্ত নেয় তার পরিবার। 
আর এই কর্মী নিয়োগ করার জন্য যোগাযোগ করা হয় ব্রিটেনের এক অভিজাত নিয়োগকারী সংস্থা ‘সিলভার সোয়ান’-এর সঙ্গে। তারা পরিবারটির চাহিদা অনুযায়ী বিজ্ঞাপনও দেয়। সেখানে লেখা ছিল, 'একটি বিত্তবান ভারতীয় পরিবারে একজন শেফ, একজন মালি, তিনজন হাউসকিপার, হাউস ম্যানেজার, পরিচারিকা, গাড়িচালক, রাধুনি ও তিনজন পিওন নিযুক্ত করা হবে। যারা ওই পরিবারের মেয়ের দেখাশোনা করবে। তারা থাকবে পাশেরই একটি বিলাসবহুল বাড়িতে। বছরে তাদের বেতন হবে ৩৯ হাজার পাউন্ড বা ২৮ লাখ রুপি।’
এক সময় এই বিশ্ববিদ্যালয়েরই পড়তেন বৃটেনের ডিউক ও ডাচেস অব কেমব্রিজ উইলিয়াম ও কেট। কিন্তু সেই সময় উইলিয়ামও আর পাঁচ জন পড়ুয়ার মতো খুব সাধারণ ভাবেই থাকতেন। তাই ধনকুবেরের মেয়ের এমন বিলাসবহুল অবস্থান নিয়ে বিস্ময় প্রকাশ করেছেন অনেকে। এ ব্যাপারে আন্ড্রুজ বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন মূখপাত্র বলেন, ‘এটা শিক্ষার্থীদের একান্ত ব্যক্তিগত ব্যাপার। সারা বিশ্ব থেকে এখানে শিক্ষার্থীরা পড়তে আসে। তাদের সবাইকে যে হলে থাকতে হবে এমন কোনও কথা নেই। সিলভার সোয়ান কোম্পানি তাদের কাজের অংশ হিসেবে এই বিজ্ঞাপন দিয়েছে। এটার সঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয়ের কোনও সম্পর্ক নেই।’ এদিকে সিলভার সোয়ান কোম্পানির একজন কর্মকর্তা জানিয়েছেন এরই মধ্যে কর্মী নিয়োগের কাজটি শেষ হয়ে গেছে। এ কারণে বিজ্ঞাপনটি আর তারা প্রচার করছেন না। এ ব্যাপারে তারা আর কোনও মন্তব্য করতে চাননি। সূত্র : টাইমস অব ইন্ডিয়া  

শীর্ষনিউজ/এসএসআই