রবিবার, ২২-সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৯:০০ অপরাহ্ন
  • আন্তর্জাতিক
  • »
  • মার্কিন মানবাধিকারকর্মীকে সন্ত্রাসী বলে প্রচার চালাল লংকান পুলিশ!

মার্কিন মানবাধিকারকর্মীকে সন্ত্রাসী বলে প্রচার চালাল লংকান পুলিশ!

shershanews24.com

প্রকাশ : ২৬ এপ্রিল, ২০১৯ ০২:২৪ অপরাহ্ন

শীর্ষকাগজ ডেস্ক:  শ্রীলংকায় ইস্টার সানডে হামলার ঘটনায় এক মার্কিন মুসলমান নারী মানবাধিকারকর্মীকে সন্দেহভাজন হিসেবে শনাক্ত করে প্রচার চালিয়েছে দেশটির পুলিশ।

বার্তা সংস্থা এএফপির খবরে বলা হয়েছে, বৃহস্পতিবার ছয় সন্দেহভাজনের ছবিসংবলিত একটি প্রচারপত্র বিলি করা হয়েছে। যাতে তিনজন পুরুষ ও তিনজন নারী রয়েছেন। রোববারের হামলায় যোগসাজশের অভিযোগে তাদের হন্যে হয়ে খোঁজা হচ্ছে বলে এতে বলা হয়।

এই ছয়জনের ভেতর একটি নাম হচ্ছে- আবদুল কাদের ফাতিমা খাদিজা। এ হামলার ঘটনায় জেরা করতে তার খোঁজ চাওয়া হয়েছে প্রচারপত্রে।

কিন্তু বিপত্তি বেধেছে ছবিতে গিয়ে। কারণ সেখানে শ্রীলংকান বংশোদ্ভূত মার্কিন মুসলিম নারী আমারা মজিদের ছবি দেয়া হয়েছে।

মুসলমানদের বিরুদ্ধে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের অবিরাম ক্ষোভ ও বিদ্বেষের প্রতিবাদ জানাতে ২০১৫ সালে তাকে খোলা চিঠি দিয়েছিলেন এই আমারা মজিদ।

নিজের ফেসবুক পেজে আমারা মজিদ লিখেছেন, হ্যালো, সবাইকে বলছি- শ্রীলংকার ইস্টার সানডে হামলায় একজন সন্দেহভাজন হিসেবে আমাকে ভুলভাবে তুলে ধরা হয়েছে।

তিনি বলেন, এটা পুরোপুরি ও পরিষ্কারভাবে মিথ্যা। আমি খোলাখুলিভাবে বলছি- মুসলমান সম্প্রদায় এই ইস্যুতে ব্যাপকভাবে নজরদারির শিকার হচ্ছেন।

বৃহস্পতিবার শ্রীলংকান পুলিশ জানায়, আবদুল কাদের ফাতিমা খাদিজার নামের পাশে যে ছবিটি ছাপা হয়েছে, তিনি ঘটনার সঙ্গে জড়িত কেউ নন, তাকে জেরার জন্য খোঁজা হচ্ছে না।

পুলিশ জানায়, কেবল আবদুল কাদের ফাতিমা খাদিজাকে জেরার জন্য খোঁজা হচ্ছে।
শীর্ষকাগজ/এম