শুক্রবার, ০৬-ডিসেম্বর ২০১৯, ০৩:০৫ পূর্বাহ্ন

ভারতের নতুন প্রধান বিচারপতি এসএ বোবদে

shershanews24.com

প্রকাশ : ১৮ নভেম্বর, ২০১৯ ১১:২৬ পূর্বাহ্ন

শীর্ষনিউজ ডেস্ক: ভারতের ৪৭ তম প্রধান বিচারপতি হিসেবে শপথ গ্রহণ করেছেন শরদ অরবিন্দ বোবদে। বিচারপতি রঞ্জন গগৈয়ের স্থলাভিষিক্ত হলেন বিচারপতি এসএ বোবদে। 
জানা গেছে, এসএ বোবদের বর্তমান বয়স ৬৩ বছর। প্রধান বিচারপতি হিসাবে তাঁর মেয়াদ থাকবে প্রায় ১৭ মাস। ২০২১ সালের ২৩ এপ্রিল পর্যন্ত দায়িত্ব পালন করবেন তিনি। রবিবার প্রধান বিচারপতি হিসাবে অবসর গ্রহণ করেন রঞ্জন গগৈ। 
বিচারপতি এসএ বোবদে বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ মামলার বিষয়ে এর আগে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। সবচেয়ে বড় কথা রাম মন্দির-বাবরি মসজিদ জমি সমস্যা সংক্রান্ত অযোধ্যা মামলায় পাঁচ বিচারপতির সংবিধান বেঞ্চের অংশও ছিলেন তিনি। ওই মামলায় ঐতিহাসিক রায় দেয় সুপ্রিম কোর্ট।
বিচারপতি বোবদে সুপ্রিম কোর্ট তৎকালীন প্রধান বিচারপতি জে এস খেহারের নেতৃত্বে নয় বিচারকের বেঞ্চেরও অংশ ছিলেন। ওই বেঞ্চটি ২০১৭ সালের অগাস্ট মাসে সর্বসম্মতিক্রমে মৌলিক অধিকার রক্ষায় রাইট টু প্রাইভেসি বা গোপনীয়তার অধিকার সাংবিধানিকভাবে সুরক্ষিত করে।
মহারাষ্ট্রের আইনজীবী পরিবারে জন্ম হওয়া এসএ বোবদে প্রথম থেকেই আইন ও বিচার বিষয়ে তুখোড় ছিলেন। তিনি প্রবীণ আইনজীবী অরবিন্দ শ্রীনিবাস বোবদের ছেলে।
অভিজ্ঞতার নিরিখেই বিচারপতি  শরদ অরবিন্দ বোবদেকে ভারতের প্রধান বিচারপতি হিসেবে বেছে নেওয়া হয়েছে। 
জানা গেছে, কেন্দ্রের কাছে চিঠি লিখে বোবদের নাম প্রস্তাব করেন সদ্য প্রাক্তন প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈ। ১৭ নভেম্বর অর্থাৎ রবিবার অবসর নিয়েছেন গগৈ। তাঁরই জায়গায় এবার সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতির দায়িত্বভার গ্রহণ করলেন এসএ বোবদে।
ভারতের রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ দেশটির প্রধান বিচারপতি হিসাবে এসএ বোবদের নিয়োগপত্রে স্বাক্ষর করেন। এরপরেই দেশের আইন মন্ত্রণালয় ভারতীয় বিচার বিভাগের পরবর্তী প্রধান হিসাবে তাঁর নাম ঘোষণা করে একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করে।
এসএ বোবদে ১৯৫৬ সালের ২৪ এপ্রিল মহারাষ্ট্রের নাগপুরে জন্মগ্রহণ করেন । এরপর নাগপুর বিশ্ববিদ্যালয় থেকে কলা বিভাগ এবং এলএলবি ডিগ্রি অর্জন করেন তিনি। ১৯৭৮ সালে তিনি মহারাষ্ট্রের বার কাউন্সিলের আইনজীবী হিসাবে তালিকাভুক্ত হন।
বিচারপতি বোবদে বোম্বে হাইকোর্টের নাগপুর বেঞ্চে দীর্ঘদিন আইনজীবী হিসাবে অনুশীলন করেন। সুপ্রিম কোর্টে ২১ বছরেরও বেশি সময় ধরে আইনজীবী হিসাবে কাজ করেন তিনি।
১৯৯৮ সালে তিনি সিনিয়র অ্যাডভোকেট হিসেবে মনোনীত হন।
বিচারপতি বোবদেকে ২০০৯  সালের ২৯ মার্চ বোম্বে হাইকোর্টে পাঠানো হয় এবং অতিরিক্ত বিচারক হিসাবে সেখানে নিয়োগ করা হয়। পরে ২০১২ সালের ১৬ অক্টোবর মধ্যপ্রদেশ হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি হিসেবে শপথ গ্রহণ করেন বোবদে।
সূত্র : এনডিটিভি
শীর্ষনিউজ/জে