শুক্রবার, ১৮-সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৭:০৬ অপরাহ্ন

কথা বলার সময় খামেনির সতর্ক হওয়া উচিত: ট্রাম্প

shershanews24.com

প্রকাশ : ১৮ জানুয়ারী, ২০২০ ১১:০৯ পূর্বাহ্ন

শীর্ষনিউজ ডেস্ক: যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহ খামেনিকে কথা বলার সময় খুব সতর্ক থাকার হুঁশিয়ারি জানিয়েছেন। শুক্রবার ১২ বছর পর জুমার নামাজের খুতবায় যুক্তরাষ্ট্রকে আক্রমণ করে খামেনির ভাষণের পর এই প্রতিক্রিয়া জানান ট্রাম্প। ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স এখবর জানিয়েছে।
এক টুইট বার্তায় ট্রাম্প বলেন, ইরানের তথাকথিত সর্বোচ্চ নেতা, যিনি বেশ কয়েকদিন ধরে সর্বোচ্চ নেই, তিনি যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপ সম্পর্কে নোংরা কথা বলেছেন।
ট্রাম্প আরও বলেন, তাদের অর্থনীতি ভেঙে পড়ছে, লোকজন দুর্ভোগে রয়েছে। কথা বলার সময় তার (খামেনি) খুব সতর্ক হওয়া উচিত।
ইরাকে মার্কিন হামলায় কুদস ফোর্সের প্রধান জেনারেল কাসেম সোলাইমানি হত্যা ও প্রতিশোধ হিসেবে বাগদাদে যুক্তরাষ্ট্রের ঘাঁটিতে ইরানি ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় উভয় দেশের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে। যুদ্ধ পরিস্থিতিতে ইরানের সেনাবাহিনী ভুল করে ১৭৬ জন যাত্রীবাহী ইউক্রেনের একটি বিমানকে ভূপাতিত করে। এই ঘটনায় ইরানিরা বিক্ষোভ করছেন এবং খামেনির পদত্যাগ চাইছেন।
এই পরিস্থিতিতে শুক্রবার দীর্ঘ ১২ বছর পর জুমার নামাজে ইমামতি করেন খামেনি। নামাজের পূর্বে দেওয়া খুতবায় তিনি যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপকে আক্রমণ করেন এবং ইরানি সেনাবাহিনীকে সমর্থন করেন। ভাষণে তিনি ট্রাম্পকে ভাঁড় আখ্যা দিয়ে বলেছেন, ইরানি জনগণের পেছনে বিষাক্ত ছুরি ধরে রেখে তাদের সমর্থন দেওয়ার কথা বলছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। ইরাকের মার্কিন সেনা অবস্থানে হামলা চালিয়ে ইরান যুক্তরাষ্ট্রের মুখে চড় দিয়েছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।
শীর্ষনিউজ/জে