শুক্রবার, ১৪-আগস্ট ২০২০, ০১:৫৮ পূর্বাহ্ন
  • অন্যান্য
  • »
  • গৃহবধূর কাঁধে চাপিয়ে দেয়া হল স্বামীকে, মারতে মারতে ঘোরাল সারা গ্রাম!

গৃহবধূর কাঁধে চাপিয়ে দেয়া হল স্বামীকে, মারতে মারতে ঘোরাল সারা গ্রাম!

shershanews24.com

প্রকাশ : ০১ আগস্ট, ২০২০ ০৬:৫০ অপরাহ্ন

শীর্ষনিউজ ডেস্ক : এবার আধুনিক যুগের বর্বরতার সাক্ষী হল ভারত। এক বিবাহিতা নারীকে তার শ্বশুরবাড়ির লোকজন প্রকাশ্যে রাস্তায় মেরে শাস্তি দিয়েছে। এমনকি ওই গৃহবধূর কাঁধে তার স্বামীকে চাপিয়ে দেওয়া হয়। তারপর আত্মীয়স্বজনরা সেই নারীকে মারতে মারতে সারা গ্রামে ঘোরায়।

বর্বর এ ঘটনাটি ঘটেছে মধ্যপ্রদেশের আদিবাসী অধ্যুষিত এলাকা ছাবুয়ায়। সেখানকার ছাপড়ি রণবাস নামের এক গ্রামে এমন ঘটনা ঘটেছে। ওই নারীর শ্বশুরবাড়ির লোকজন তাকে সন্দেহ করে। তারা মনে করে, ওই নারীর গ্রামেরই এক যুবকের সঙ্গে সম্পর্ক রয়েছে। আর স্রেফ সন্দেহের বশেই তাকে সবাই মিলে শাস্তি দিল।

ওই নারীর ঘাড়ে চাপিয়ে দেওয়া হল তার স্বামীকে। তার পর তাকে মারধর করে ঘোরানো হল সারা গ্রামে। তার পিছনে লাঠি, ঝাঁটা নিয়ে ছিল একদল আত্মীয়। তারা সুযোগ পেলেই সেই নারীকে মারছিল। ওই গৃহবধূ কোনোমতে আঁচল দিয়ে নিজের মুখ ঢেকে রেখেছিলেন। এমন অপমান কী আর সহ্য করা যায়!

জানা গেছে, বছর তিনেক আগে ছাপড়ি রণবাস গ্রামের বদিয়া নামের এক যুবকের সঙ্গে ওই নারীর বিয়ে হয়েছিল। ওই গৃহবধূকে তার স্বামী ও শ্বশুরবাড়ির লোকেরা অনেকদিন ধরেই সন্দেহ করত। তারা এর আগেও তার উপর মানসিক ও শারীরিক অত্যাচার করেছে।

ওই নারীকে মারধরের একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছিল সোশ্যাল মিডিয়ায়। তার ভিত্তিতে পুলিশ স্বামীসহ মোট সাতজনকে গ্রেপ্তার করেছে। সাতজনই তার আত্মীয়। আটক সাতজনের বিরুদ্ধেই একাধিক মামলা দায়ের করেছে পুলিশ। সূত্র : জি নিউজ।
শীর্ষনিউজ/এসএসআই 



..........