শুক্রবার, ০৫-জুন ২০২০, ০১:১৬ অপরাহ্ন
  • অন্যান্য
  • »
  • সরকারি চাকরিজীবীদের বেতন বৈষম্য নিরসনে আল্টিমেটাম  

সরকারি চাকরিজীবীদের বেতন বৈষম্য নিরসনে আল্টিমেটাম  

shershanews24.com

প্রকাশ : ০৭ ফেব্রুয়ারী, ২০২০ ১১:২৫ অপরাহ্ন

শীর্ষনিউজ, ঢাকা: ১১-২০ গ্রেডের সরকারি চাকরিজীবীদের বেতন বৈষম্য নিরসন, অভিন্ন নিয়োগবিধি বাস্তবায়ন, টাইম স্কেল-সিলেকশন গ্রেড পুণর্বহালসহ ৮ দফা দাবিতে রাজধানীতে মানববন্ধন করেছে ১১-২০ গ্রেডের সরকারি চাকরিজীবীদের সম্মিলিত অধিকার আদায় ফোরাম। আগামী এক মাসের মধ্যে দাবিগুলো মেনে নিতে আল্টিমেটামও দেয়া হয় মানববন্ধন থেকে। 

আজ (৭ ফেব্রুয়ারি) সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে ১১-২০ গ্রেডের সরকারি চাকরিজীবীদের সম্মিলিত অধিকার আদায় ফোরামের উদ্যোগে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের কেন্দ্রীয় আহ্বায়ক পরিষদের আহ্বায়ক মোঃ মিরাজুল ইসলাম এবং সঞ্চালনা করেন সদস্য সচিব মোঃ মাহমুদুল হাসান। ভোর থেকেই দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে জড়ো হন ১১-২০ গ্রেডের সরকারি চাকরিজীবীরা। সকাল ১০টার পর মানববন্ধন গণজমায়তে রূপ নেয়। এতে সারা দেশ থেকে আসা সরকারি চাকরিজীবীরা তাদের ন্যায্য দাবি মেনে নিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অনুরোধ জানান। 

বক্তারা বলেন, বাংলাদেশের উন্নয়ন-অগ্রগতির অংশিদার এই ১১ থেকে ২০ গ্রেডের কর্মচারীরাও। কিন্তু তাদের পেছনে ফেলে রেখে দেশকে কাঙ্খিত লক্ষ্যে পৌঁছানো যাবে না। মানববন্ধনে বক্তারা আট দফা দাবি তুলে ধরেন। দাবিগুলো হচ্ছে- এক. ২০১৫ সালে প্রদত্ত ৮ম পে-স্কেল সংশোধনসহ বেতন বৈষম্য নিরসন করে গ্রেড অনুযায়ী বেতন স্কেলের পার্থক্য সমহারে নির্ধারণ ও গ্রেড সংখ্যা কমাতে হবে। দুই. এক ও অভিন্ন নিয়োগবিধি বাস্তবায়ন করতে হবে। তিন. সকল পদের পদোন্নতি বা ৫ বছর পর পর উচ্চতম গ্রেড প্রদান করতে হবে। চার. টাইম স্কেল সিলেকশন গ্রেড পূণর্বহাল ও ২০ শতাংশ ইনক্রিমেন্ট প্রদান করতে হবে। পাঁচ. সচিবালয়ের ন্যায় পদবী ও গ্রেড পরিবর্তন করতে হবে। ছয়. সকল ভাতা বাজার চাহিদা অনুযায়ী সমন্বয় করতে হবে। সাত. নিম্ন বেতন ভোগীদের জন্য রেশন ও শতভাগ পেনশন চালু করতে হবে। আট. কাজের ধরণ অনুযায়ী পদ নাম ও গ্রেড একীভূত করতে হবে। 

আজকের মানববন্ধনে সভাপতির বক্তব্যে সংগঠনের কেন্দ্রীয় কমিটির আহ্বায়ক মোঃ মিরাজুল ইসলাম আট দফা দাবি মেনে নিতে সরকারকে ১ মাসের আল্টিমেটাম দিয়েছেন। তিনি বলেন, ৭ মার্চের মধ্যে দাবিগুলো মেনে নেয়া না হলে তারা কঠোর কর্মসূচীতে যেতে বাধ্য হবেন। তিনি বলেন, আমরা কঠোর কর্মসূচীতে যেতে চাই না, কর্মবিরতিতেও যেতে চাই না, আমরা শুধু আমাদের ন্যায্য দাবিগুলো আদায় চাই। 
শীর্ষনিউজ/এসএসআই