সোমবার, ২৩-সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১২:০৯ অপরাহ্ন
  • জাতীয়
  • »
  • ৫ জেলায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১০, আহত অর্ধশতাধিক

৫ জেলায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১০, আহত অর্ধশতাধিক

shershanews24.com

প্রকাশ : ২৪ আগস্ট, ২০১৯ ০৫:২১ অপরাহ্ন

শীর্ষনিউজ, ঢাকা : দেশের পাঁচ জেলায় আজ শনিবার পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় অন্তত ১০ জনের প্রাণহানি ঘটেছে। এতে আরও ৫৬ জন আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে। এদের মধ্যে শুধু ফরিদপুরেই ব্রিজের রেলিং ভেঙে বাস খাদে পড়ে ৬ ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। এ দুর্ঘটনায় আরও ২২ জন আহত হন। আহতদের স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। 
ফরিদপুর: ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের ফরিদপুরের ধুলদীতে ব্রিজের রেলিং ভেঙে বাস খাদে পড়ে ৬ ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। এছাড়াও আরও ২২ জন আহত হন। শনিবার বেলা আড়াইটার দিকে কমফোর্ট লাইন পরিবহনের ফরিদপুরমুখী একটি যাত্রীবাহী নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে পড়ে উল্টে যায়। এতে এই হতাহতের ঘটনা ঘটে।
ঠাকুরগাঁও: ঢাকা-ঠাকুরগাঁও মহাসড়কের জগন্নাথপুর বি-আখড়া নামকস্থানে তাজ পরিবহনের একটি নৈশ কোচ নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাছের সঙ্গে ধাক্কা লেগে ১ জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরও ১৪ জন। শুক্রবার মধ্যরাতে এ দুর্ঘটনা ঘটে। 
নিহত ইউসুফ (৩৮), তার বাড়ি চাঁদপুর জেলায়। তিনি নৈশ কোচটির  হেল্পার বলে যাত্রীদের সূত্রে জানা গেছে। আহত ১৪ জনের মধ্যে ১০ জনকে ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। অন্যদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। 
হাইওয়ে পুলিশ জানায়, ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা ঠাকুরগাঁওগামী তাজ পরিবহনের নৈশ কোচ সদর উপজেলার বি-আখড়া জেলা বনবিভাগ কার্যালয়ের সামনে এসে পৌঁছলে গাছের সঙ্গে ধাক্কা খায়। এতে যাত্রীবাহী বাসটি উল্টে ১৫ জন আহত হন। তাদের ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে  নেয়ার পর কোচের হেল্পার ইউসুফ মারা যান। 
সাভার: সাভারের আশুলিয়ায় বাসচাপায় মঞ্জুরুল ইসলাম (৩০) নামে ১ পথচারী নিহত হয়েছেন। আজ শনিবার সকালে নবীনগর-চন্দ্রা মহাসড়কের আশুলিয়ার ইপিজেড এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত মঞ্জুরুল সিরাজগঞ্জ জেলার বেলকুচি থানার নুর ইসলামের ছেলে। তিনি ফোর গ্রুপে সিকিউরিটি গার্ড হিসেবে চাকরি করতেন।
আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আব্দুস সালাম গণমাধ্যমকে খবরের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, শনিবার সকালে নবীনগর-চন্দ্রা মহাসড়ক দিয়ে বলিবদ্র থেকে ইপিজেড কর্মস্থলে যাচ্ছিলেন মঞ্জুরুল। তখন পেছন থেকে রকি এন্টারপ্রাইজের একটি পরিবহনের তাকে চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। 
নারায়ণগঞ্জ: ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ আদমজী সড়কে দুটি বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে ১ জন নিহত ও ২০ জন আহত হয়েছেন। শনিবার সকাল ১০টার দিকে বামাশীল এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতের নাম মেহেদী (৩০)। সে দুরন্ত পরিবহনের চালক।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, চাষাঢ়া-শিমরাইল সড়কের দূরন্ত পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাস চাষাঢ়া থেকে চিটাগাং রোডের দিকে যাওয়ার পথে বিপরীত দিক থেকে আসা নিট কনসার্ন নামে একটি পোশাক কারখানার যাত্রীবাহী বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে উভয় বাসের চালকসহ অন্তত ২০ জন আহত হন। পরে আহতদের মধ্যে দূরন্ত বাসের চালক মেহেদীকে দ্রুত উদ্ধার করে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নেয়ার পথে তার মৃত্যু হয়। এছাড়া গুরুতর আহত পাঁচ থেকে সাতজনকে ঢামেক হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। বাকি আহতদের শহরের খানপুর এলাকার ৩০০ শয্যা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
সিরাজগঞ্জ: ঢাকা-ঈশ্বরদী রেলপথের ভাঙ্গুড়া রেলওয়ে ষ্টেশন এলাকায় ট্রেনের ধাক্কায় অজ্ঞাত (১৬) এক যুবক নিহত হয়েছে।
সিরাজগঞ্জ রেলওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হারুন মজুমদার বলেন, রাতে ঢাকা থেকে বেনাপোলগামী বেনাপোল এক্সপ্রেস ট্রেনটি ভাঙ্গুড়া রেলওয়ে ষ্টেশন এলাকায় পৌছলে অজ্ঞাত এক যুবক ট্রেনের ধাক্কায় নিহত হয়। 
খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য সিরাজগঞ্জ বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতাল মর্গে প্রেরন করে। 
শীর্ষনিউজ/সবুজ