বুধবার, ২০-নভেম্বর ২০১৯, ০১:৫৫ অপরাহ্ন
  • অফিস-আদালত
  • »
  • অন্তঃসত্ত্বাকে ধর্ষণের অভিযোগ, ব্রাইট ফিউচারের ৪ জনের বিরুদ্ধে মামলা

অন্তঃসত্ত্বাকে ধর্ষণের অভিযোগ, ব্রাইট ফিউচারের ৪ জনের বিরুদ্ধে মামলা

shershanews24.com

প্রকাশ : ২৮ মে, ২০১৯ ০৬:২৪ অপরাহ্ন

শীর্ষকাগজ, ঢাকা: অন্তঃসত্ত্বা নারীকে ধর্ষণের অভিযোগে ব্রাইট ফিউচার হোল্ডিং লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালকসহ চারজনের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন এক নারী।

মঙ্গলবার (২৮ মে) ঢাকার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-৯ এর বিচারক শরীফ উদ্দিনের আদালতে মামলাটি দায়ের করেন তিনি। বিচারক বাদীর জবানবন্দি গ্রহণ সংশ্লিষ্ট থানাকে অভিযোগটি এজাহার হিসেবে নেওয়ার নির্দেশ দেন।

মামলার আসামিরা হলেন, ব্যবস্থাপনা পরিচালক রেজাউল ইসলাম সোহেল, পারভীন আক্তার (২৯), কাজী সামছুর রহমান (৪০) ও হারুন অর রশিদ (৪০) ।

মামলায় অভিযোগ থেকে জানা যায়,বাদীর সঙ্গে সোহেলের অনেক আগে থেকে পরিচয় ছিল। সোহেলের সঙ্গে ২০১২ সালের ২১ সেপ্টেম্বর গাজীপুরে ৩ কাঠা প্লট ক্রয়ের মৌখিক চুক্তি হয়। চুক্তি অনুযায়ী বাদী সোহেলকে ২৪ লাখ টাকা দেন। ১৪ মাস পরে সোহেল চুক্তিটি বাতিল করে গার্ডিয়ান রিয়েল এস্টেট থেকে একটি ফ্ল্যাট বাদীকে দেওয়ার লিখিত চুক্তি করেন।

দুই বছর পরও সোহেল সেটা বুঝিয়ে না দিয়ে টালবাহানা শুরু করেন। এরপর বাদী তার বিরুদ্ধে ২০১৪ সালের ১৩ ডিসেম্বর সালিশি মামলা করেন। সালিশে আসামি তার একটি প্রজেক্ট বিক্রি করে বাদীকে নগদ কিছু টাকা দেবেন বলে উল্লেখ করেন এবং বাকি টাকার ছয়টি চেক বাদীকে দেন। চেক দেওয়ার পর আসামি বাদীকে চেক ও চুক্তিনামা ফেরত দেওয়ার জন্য বিভিন্ন সময় ভয়ভীতি ও হুমকি দেন।

গত ২৪ এপ্রিল আসামিদের সঙ্গে বাদীর মামলা তুলে নেওয়ার বিষয়ে আলোচনা হয়। বাদী আপসের কথা না মানলে সোহেল তাকে তার নিজের রুমে নিয়ে আলোচনায় বসেন। এসময় বাদীকে সোহেল ধর্ষণ করেন। ওই সময় বাদী অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন। তিনি বের হওয়ার চেষ্টা করলে কাজী সামছুর রহমান এবং হারুন অর রশিদ তাকে ধর্ষণের চেষ্টা করেন।
শীর্ষকাগজ/এসএসআই