মঙ্গলবার, ২৪-সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৩:৪৪ অপরাহ্ন
  • অফিস-আদালত
  • »
  • কেরানীগঞ্জে আদালত স্থানান্তরের প্রজ্ঞাপন প্রত্যাহার চাওয়া রিটের শুনানি মুলতবি

কেরানীগঞ্জে আদালত স্থানান্তরের প্রজ্ঞাপন প্রত্যাহার চাওয়া রিটের শুনানি মুলতবি

shershanews24.com

প্রকাশ : ১০ জুন, ২০১৯ ১২:৫৮ অপরাহ্ন

শীর্ষকাগজ, ঢাকা: বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বিচারের জন্য কেরানীগঞ্জের কেন্দ্রীয় কারাগারে আদালত স্থানান্তরের প্রজ্ঞাপন প্রত্যাহার চেয়ে করা রিটের শুনানি আগামীকাল মঙ্গলবার (১১ জুন) পর্যন্ত মুলতবি করেছেন হাইকোর্ট। 

আজ সোমবার বিচারপতি ফারাহ মাহবুব ও বিচারপতি খায়রুল আলমের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করতে সময় আবেদন করেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী এ জে মোহাম্মদ আলী। এসময় দুদকের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী খুরশীদ আলম খান। পরে আদালত রিটের শুনানি আগামীকাল মঙ্গলবার পর্যন্ত মুলতবি করেন।

এর আগে গত ২১ মে খালেদা জিয়ার অন্যতম আইনজীবী কায়সার কামাল সংশ্লিষ্ট প্রজ্ঞাপন প্রত্যাহার চেয়ে আইন মন্ত্রণালয়ের সচিবকে একটি আইনি নোটিশ পাঠান। কিন্তু তার জবাব না পাওয়ায় ২৬ মে হাইকোর্টে রিট করা হয়।

নোটিশে বলা হয়, ১২ মে আইন মন্ত্রণালয় থেকে একটি প্রজ্ঞাপন জারি করে। ওই প্রজ্ঞাপন অনুসারে খালেদা জিয়ার মামলা শুনানির জন্য পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে বিশেষ জজ আদালত-৯ কেরানীগঞ্জে নেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। সংবিধানের ৩৫ অনুচ্ছেদের স্পষ্টভাবে বলা হয়েছে, যে কোনও বিচার হতে হবে উন্মুক্তভাবে। কারাগারের একটি কক্ষে উন্মুক্তভাবে বিচার হতে পারে না। ফলে এই প্রজ্ঞাপন সংবিধানবিরোধী। 

একইসঙ্গে কোথায় কোথায় কারাগার স্থানান্তরিত হতে পারে তা ফৌজদারী কার্যবিধি আইনে দেয়া আছে। ফৌজদারী কার্যবিধি আইনে কোথাও উল্লেখ নেই যে, কারাগারের মধ্যে আদালত স্থাপন হতে পারে। সুতরাং সংবিধান ও ফৌজদারী আইনের বিরুদ্ধে সরকার অবস্থান নিয়েছে।
শীর্ষকাগজ/এম