শনিবার, ২৪-জুলাই ২০২১, ১০:৫৪ পূর্বাহ্ন
  • শিক্ষা
  • »
  • বশেমুরবিপ্রবির ভিসি-রেজিস্ট্রারকে অবরুদ্ধ করে রেখেছে মাস্টারোল কর্মচারীরা

বশেমুরবিপ্রবির ভিসি-রেজিস্ট্রারকে অবরুদ্ধ করে রেখেছে মাস্টারোল কর্মচারীরা

shershanews24.com

প্রকাশ : ১৬ জুন, ২০২১ ০৪:৩৫ অপরাহ্ন

শীর্ষনিউজ, গোপালগঞ্জ: গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (বশেমুরবিপ্রবি) চাকরি স্থায়ীকরণের দাবিতে উপাচার্য ও রেজিস্ট্রারকে অবরুদ্ধ করে রেখেছে মাস্টাররোলের কর্মচারীরা।

আজ সকাল ১১টার দিকে আন্দোলনরত কর্মচারীরা উপাচার্য ও রেজিস্ট্রারের দপ্তরের ফটকে তালা লাগিয়ে দেন। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে জেলা প্রশাসনের প্রতিনিধি ও পুলিশ বিশ্ববিদ্যালয়ে অবস্থান করছে।

উপাচার্যকে অবরুদ্ধের বিষয়ে মাস্টাররোল কর্মচারী রিপন গাজী বলেন, আমরা গত তিন বছর যাবৎ অস্থায়ী ভিত্তিতে কাজ করছি। মাঝে প্রায় ১৩ মাস আমাদের বেতন বন্ধ ছিলো। নতুন উপাচার্য আসার পর চাকরি স্থায়ীকরণের আশ্বাস দিয়েছিলেন। কিন্তু আমরা এখনও আশ্বাসের কোনো বাস্তবায়ন দেখিনি। এখন আমাদের একটাই দাবি নীতিমালা প্রণয়ন করে চাকরি স্থায়ীকরণ করতে হবে। দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত গেট আটকানো থাকবে এবং অবরোধ চলবে।

এ বিষয়ে উপাচার্য ড. এ কিউ এম মাহবুব বলেন, আমি বিশ্ববিদ্যালয়ে উপাচার্য হিসেবে আসার আগে মাস্টাররোলে প্রায় দেড় শতাধিক কর্মচারী নেওয়া হয়েছে। কিন্তু বিশ্ববিদ্যালয়ে এত সংখ্যক কর্মচারীর পদ নেই। ইউজিসির কাছে সম্প্রতি কিছু পদে লোক নিয়োগের আবেদন করা হয়েছে। এক্ষেত্রে হয়ত ১২-১৩টি কর্মচারীর পদ আসতে পারে। ইউজিসি অনুমতি না দিলে আমাদের চাকরি স্থায়ীকরণের সুযোগ নেই। বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য খন্দকার নাসিরউদ্দিন নিয়ম না মেনে মাস্টাররোলে এইসব কর্মচারীদের নিয়োগ দিয়েছিলেন।

শীর্ষনিউজ/আরএইচ