সোমবার, ১২-এপ্রিল ২০২১, ০৬:৫০ অপরাহ্ন
  • জাতীয়
  • »
  • সবার জন্য ভ্যাকসিন নিশ্চিতে বিশ্বনেতাদের এক করছেন ড. ইউনূস

সবার জন্য ভ্যাকসিন নিশ্চিতে বিশ্বনেতাদের এক করছেন ড. ইউনূস

shershanews24.com

প্রকাশ : ১২ নভেম্বর, ২০২০ ১০:৫৯ অপরাহ্ন

শীর্ষনিউজ ডেস্ক : মার্কিন ওষুধ প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান ফাইজার ও জার্মান জৈবপ্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান বায়োএনটেকের করোনা প্রতিরোধী ভ্যাকসিন বিশ্বব্যাপী ব্যাপক আগ্রহ তৈরি হয়েছে। ভ্যাকসিনটির ৯০ শতাংশ কার্যকারিতা পেয়েছে প্রস্তুতকারকেরা।

ফাইজার ইতিমধ্যেই ডিসেম্বরে এই ভ্যাকসিন বাজারজাত করার ঘোষণা দিয়েছে। কারা এই ভ্যাকসিন আগে পাবে এ নিয়ে আলোচনা চলছে দেশে দেশে।

এদিকে বাংলাদেশ অক্সফোর্ডের ভ্যাকসিন পেতে চুক্তি করেছে। ফাইজারের টিকা আগে এসে যাচ্ছে এই খবরে এখন এক ধরনের হতাশা তৈরি হয়েছে।

বলা হচ্ছে, বাংলাদেশের উচিত ছিল আরো কয়েকটি কোম্পানির সঙ্গে চুক্তি করা। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা অবশ্য বলছেন, আরো ৬টি প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে আলোচনা চলছে।

ভয়েস অব আমেরিকা জানায়, এই অবস্থায় ভ্যাকসিন যাতে দরিদ্র মানুষের কাছে পৌঁছায় সেজন্য নোবেলজয়ী ড. মুহাম্মদ ইউনূস ‘গ্লোবাল কমন গুড’ নামে একটি উদ্যোগ নিয়েছেন।

এ অর্থনীতিবিদের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, ‘গ্লোবাল কমন গুড’ হচ্ছে করোনা ভ্যাকসিনের ওপর বিশ্বের সব মানুষের সমান অধিকার। যেমনটা রয়েছে আলো-বাতাসের ওপর।

ইতিমধ্যেই বিশ্বের অনেক রাষ্ট্রপ্রধান, নোবেলজয়ী, রাজনৈতিক নেতা, এনজিওসহ বহু প্রতিষ্ঠান ড. ইউনূসের এই উদ্যোগের প্রতি সমর্থন জানিয়েছেন। এ নিয়ে কাজ করছে পিপল ভ্যাকসিন অ্যালায়েন্স। ঢাকাস্থ ইউনূস সেন্টার এর অন্যতম সদস্য।

ফাইজারের ভ্যাকসিনকে স্বাগত জানালেও তারা সন্দিহান এই ভ্যাকসিন বিশ্বের সব মানুষ পাবে কিনা?

পিপল ভ্যাকসিন অ্যালায়েন্সের একটি টুইট বার্তা ইউনূস সেন্টার তাদের ফেসবুক পেজে শেয়ার করেছে। এতে বলা হয়, ‘খুব ভালো খবর যে ফাইজার ভ্যাকসিন করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে কার্যকর প্রমাণিত হয়েছে। কিন্তু বড় ওষুধ কোম্পানির মুনাফা এবং একচেটিয়া ব্যবসা করার অর্থ সময় মতো পর্যাপ্ত পরিমাণে ডোজ উৎপাদন করা যাচ্ছে না।’

করোনা ভ্যাকসিন সহজলভ্য করার প্ল্যাটফর্মটি আরও বলে, ‘ফাইজার এবং বায়োএনটেককে অবশ্যই তাদের ভ্যাকসিন প্রযুক্তিটি প্রকাশ এবং অন্যদের সঙ্গে ভাগ করে নিতে হবে যাতে করে সারা বিশ্বের জন্য প্রয়োজনীয় শত শত কোটি ডোজ ভ্যাকসিন এখন সম্ভাব্য সবচেয়ে কম মূল্যে উৎপাদন করা যায়। অন্যথায় কোটি কোটি মানুষ যাদের এই ভ্যাকসিনের জরুরি প্রয়োজন, ভাগ্যবঞ্চিত হবে। ভ্যাকসিনের জন্য বিশ্ব অপেক্ষা করে বসে থাকতে পারে না।’

এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরো ১৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। এতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৬ হাজার ১৪০ জনে। মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৪ লাখ ২৭ হাজার ১৯৮ জন।
শীর্ষনিউজ/এসএসআই